Menu

সর্বশেষ


বাংলাপ্রেস ডেস্ক: করোনা আতঙ্কের মধ্যেই সীমিত পরিসরে পালিত হচ্ছে পবিত্র হজ। সূর্যোদয়ের সাথে সাথেই আরাফাত ময়দানের উদ্দেশ্যে যাত্রা শুরু করেন মুসল্লিরা। সূর্যাস্ত পর্যন্ত আরাফাতের ময়দানে অবস্থান করবেন তারা। সেখানে হজের খুতবা শুনবেন এবং এক আজানে জোহর ও আসরের নামাজ আদায় করবেন।

সন্ধ্যায় মুজদালিফার উদ্দেশে আরাফাতের ময়দান ত্যাগ করবেন হাজিরা। মুজদালিফায় আবারো এক আজানে আদায় করবেন মাগরিব ও এশার নামাজ। রাতে মুজদালিফায় খোলা আকাশের নিচে থাকবেন তাঁরা। সংগ্রহ করবেন শয়তানকে মারার জন্য পাথর। শুক্রবার আবারো ফিরবেন মিনায়। এদিন শয়তানকে পাথর নিক্ষেপ ও পশু কোরবানীর মধ্য দিয়ে শেষ হবে মূল আনুষ্ঠানিকতা। পরের দুই দিন কাবা শরীফ তাওয়াফ করবেন হাজীরা।

৯০ বছরের মধ্যে এই প্রথম সৌদি আরবে অবস্থানকারী ছাড়া বাইরের কেউ অংশ নিতে পারেননি। প্রাথমিকভাবে সৌদি সরকার ১ হাজার হাজীর অংশগ্রহণের কথা বললেও স্থানীয় সংবাদ মাধ্যম বলছে, হজে অংশ নিয়েছেন প্রায় ১০ হাজার।

বিপি । আর এল