Menu

সর্বশেষ


আজমীর হোসেন তালুকদার, ঝালকাঠি থেকে : ঝালকাঠির রাজাপুর উপজেলাধীন গালুয়া ইউনিয়নের ৫ নং ওয়ার্ডের ইউপি সদস্য গোলাম ফারুক মোল্লাকে (৪৫) একটি হত্যাচেষ্টা, লুটতরাজ, ভাংচুর ও শ্লীলতাহানীর
অভিযোগে দায়েরকৃতমামলায় গ্রেপ্তার করেছে থানা পুলিশ। ০৮ জুলাই রাজাপুরের গালুয়া ইউনিয়নের পুটিয়াখালি এলাকার সৈয়দ আলী সিকদারের মেয়ে ফাহিমা বেগম (২৪) বাদী হয়ে বাদশা সিকদার, তার বেয়াই ইউপি সদস্য গোলাম ফারুক মোল্লাসহ ১৫/১৬ জনের বিরুদ্ধে মামলা দায়ের করা হয়। উক্ত মামলার পালাতক আসামী হিসাবে ২৫ জুলাই শনিবার দিবাগত রাত আনুমানিক সাড়ে ৩.৩০ টায় রাজাপুর থানা পুলিশ পুটিয়াখালি বাজার সংলগ্ন এলাকা থেকে তাকে গ্রেপ্তার করে। ইউপি সদস্য গোলাম ফারুক মোল্লা জাতীয়তাবাদী কৃষকদল রাজাপুর উপজেলা শাখার সভাপতি ও পুটিয়াখালি এলাকার মৃত মোহাম্মদ আলী মোল্লার ছেলে বলে পুলিশ জানিয়েছে।

মামলার বাদী ফাহিমা জানায়, জমিজমা সংক্রান্ত পূর্ব বিরোধের জের ধরে কিছু দিন পূর্বে তার পিতা সৈয়দ আলী সিকদার ও মায়ের বিরুদ্ধে রাজাপুর থানায় আসামী পক্ষের লোকেরা একটি ((জি আর ১০৫/২০২০(রাজা:) মামলা দায়ের করে। গত ৮ জুলাই উক্ত মামলায় থেকে ঝালকাঠি বিজ্ঞ আদালত থেকে দুজনেই জামিন নিয়ে বাড়ীতে আসলে আসামীরা ক্ষিপ্ত হয়ে ওঠে। তারা দেশীয় অস্ত্র (রামদা, চাপতি, লোহার রড়) নিয়ে ফাহিমাদের ঘরের সম্মুখে এসে তার বাবা ও মাকে অকথ্য ভাষায় গালমন্দ শুরু করে। তাদের গালমন্দের প্রতিবাদ করলে আসামীরা দলবদ্ধ ভাবে ঘরের জানালা ভেঙ্গে বসত ঘরে মধ্যে প্রবেশ করে ফাহিমার পিতা-মাতাকে এলোপাথরি পিটিয়ে-কুপিয়ে জখম করে।

আসামীরা ফাহিমার পিতা-মাকে খুনের উদ্দেশ্যে মাথায় কোপ দেয় ও হাতের আঙ্গুল কেটে বিচ্ছিন্ন করে ফেলে। এসময় তারা সন্ত্রাসী কায়দায় ঘরের মধ্যে ব্যাপক তান্ডব ও ভাংচুর করে এবং ট্রাংকের ভিতরে থাকা নগত ৬০(ষাট) হাজার টাকা লুটে নেয়। এমন কি আসামীরা ঘরে থাকা মহিলাদের পরনের কাপর চোপর টানা হেঁচরা করে শ্লীনতাহানি ঘটায়। অনিরুপায় হয়ে বাদী ফাহিমা পুলিশের সহযোগীতার জন্য ৯৯৯ ফোন দিলে রাজাপুর থানা পুলিশ ঘটনাস্থলে পৌছে। তার বাদীর পিতা-মাতাকে রক্তাক্ত অবস্থায় উদ্ধার করে রাজাপুর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে আসলে কর্তব্যরত চিকৎসক তাদের অবস্থার অবনতি দেখে বরিশাল শেবাচিম হাসপাতালে প্রেরন করেন।

রাজাপুর থানা পুলিশের উপ-পরিদর্শক দিলিপ কুমার বলেন, গত ৮জুলায় একটি হত্যাচেষ্টা, দাঙ্গা, লুটতরাজ, ভাংচুর ও শ্লীলতাহানীর অভিযোগে দায়েরকৃত মামলার এজাহারভূক্ত ২ নং আসামী হিসাবে ইউপি সদস্য গোলাম ফারুক মোল্লাকে পুটিয়াখালি এলাকার একটি ঘর থেকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে। বাকি আসামীদের গ্রেপ্তার প্রচেষ্টা অব্যাহত রয়েছে।

বিপি/আর এল