Menu

সর্বশেষ


বশেমুরবিপ্রবি থেকে সংবাদদাতা: বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের যেটি গোপালগঞ্জে অবস্থিত তারই নামের সাথে মিল রেখে পিরোজপুরে আরেকটি পাবলিক বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রস্তাবনা করা হয়েছে।

গত ১৬ জুলাই মাধ্যমিক ও উচ্চ শিক্ষা বিভাগের যুগ্ম সচিব সৈয়দ আলী রেজা স্বাক্ষরিত শিক্ষামন্ত্রণালয়ের একটি বিজ্ঞপ্তি প্রকাশের পর শিক্ষার্থীরা জানতে পারে একই নামের প্রস্তাবিত আরো একটি বিশ্ববিদ্যালয় পার্শ্ববর্তী পিরোজপুর জেলায় অনুমোদন পেতে যাচ্ছে।

একই নামে অন্য একটি বিশ্ববিদ্যালয় হতে যাচ্ছে দেখে বিশ্ববিদ্যালয়ের সাধারণ শিক্ষার্থী ও শিক্ষকরা উদ্বিগ্ন হয়ে পড়েছে। তারা মনে করেন একই নামে পাশাপাশি দুটি জেলায় বিশ্ববিদ্যালয় যেটা অমূলক।

হাজার বছরের শ্রেষ্ঠ বাঙ্গালী জাতির পিতার নামাঙ্কিত এই বিশ্ববিদ্যালয়ের নামের সাথে মিল রেখে একই নামের দুটি বিশ্ববিদ্যালয় অনুমোদন দেওয়ার সিদ্ধান্তকে সাধারণ শিক্ষার্থীরা অযৌক্তিক মনে করে ক্ষোভ ও প্রতিবাদ জানিয়েছেন।

বশেমুরবিপ্রবির সাধারণ শিক্ষার্থীরা মনে করেন , বিশ্ববিদ্যালয়ের সাথে শিক্ষার্থীদের পরিচয়টা ওতোপ্রোতোভাবে জড়িত ।তাদের বিশ্ববিদ্যালয়ের নামটা আলাদা একটা অনুভূতির জায়গা। আর সব বিশ্ববিদ্যালয়ের নামের ক্ষেত্রেই স্বকীয়তা বিদ্যমান থাকে। আর এক্ষেত্রে এমন গুরুত্বপূর্ণ বিষয়ে এধরণের সিদ্ধান্তকে তারা দায়িত্বশীল কতৃপক্ষের দায়িত্বজ্ঞানহীনতার পরিচয় বলে মনে করছেন।শিক্ষার্থীরা আরও জানান,একই নামের দুইটি সরকারী বিশ্ববিদ্যালয় এটা কোনভাবেই যৌক্তিক হতে পারে না ।

বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য (চলতি দায়িক্ত) ড. মো: শাহজাহান বলেন, “আমরা এখনো অফিসিয়ালি কোনো চিঠিপত্র পাইনি,আমাদের যতটুকু করার আমরা করেছি। আমরা তাদের কে বলেছি, একই নামে একটি বিশ্ববিদ্যালয় গোপালগঞ্জে আছে”।

উল্লেখ্য,জাতীয় সংসদে ২০০১ সালে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয় (বশেমুরবিপ্রবি) আইন পাসের মাধ্যমে গোপালগঞ্জে যাত্রা শুরু করে বঙ্গবন্ধু শেখ মজিবুর রহমান বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়।বর্তমানে বিশ্ববিদ্যালয়টিতে ৩৪ বিভাগে ১২ হাজারের বেশি শিক্ষার্থী অধ্যায়ন করছে।

বিপি। আর এল