Menu

সর্বশেষ


বাংলাপ্রেস ডেস্ক: বিশ্বজুড়ে মহামারীর মধ্যে কি আইপিএল আয়োজিত হবে? নাকি চলতি বছর বাতিলই হয়ে যাবে টুর্নামেন্ট? দীর্ঘদিন ধরে এ নিয়ে জল্পনা চলছিল। অবশেষে শুক্রবার ছবিটা অনেকটাই পরিষ্কার হল। এদিন বিসিসিআইয়ের (BCCI) বৈঠকে ঠিক হয়, আইসিসি চলতি বছর টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ স্থগিতের সিদ্ধান্ত নিলে অক্টোবর-নভেম্বরেই বসবে আইপিএলের আসর। তবে ভারতে নয়। ফের বিদেশের মাটিতে হবে টুর্নামেন্ট।

চলতি বছর আইপিএল আয়োজনের ইচ্ছাপ্রকাশ করেছিল শ্রীলঙ্কা, নিউজিল্যান্ড এবং সংযুক্ত আরব আমিরশাহী। বলা হয়েছিল, করোনার প্রকোপের জন্য ভারতে টুর্নামেন্ট করতে সমস্যা হলে তারা তার দায়িত্ব নিতে রাজি। কিন্তু বিসিসিআই চাইছিল, দেশেই হোক টুর্নামেন্ট। এতে মহামারীতে হওয়া আর্থিক ক্ষতি থেকে নিজেদের অনেকটাই টেনে বের করা যাবে। কিন্তু শুক্রবারের বৈঠকে বোর্ড আধিকারিকরা অন্য পথে হাঁটলেন। সব ঠিকঠাক থাকলে এবারের ভেন্যু হিসেবে আরব আমিরশাহীকেই বেছে নিচ্ছে বোর্ড।

কিন্তু কেন আমিরশাহী? আসলে ২০১৪ সালে দেশে লোকসভা নির্বাচন থাকায় টুর্নামেন্টের প্রথম লেগ আমিরশাহীতেই আয়োজিত হয়েছিল। ফলে এই বিপুল আয়োজনের অভিজ্ঞতা তাদের রয়েছে। তাছাড়া সেখানকার কোয়ারেন্টাইনের মেয়াদও কম। যা মনে ধরেছে বিসিসিআইয়ের। তাই এই দেশকেই বেছে নেওয়ার কথা ভেবেছে বিসিসিআই। অর্থাৎ এবার টিভির পর্দাতেই চোখ রেখেই হয়তো ম্যাচ উপভোগ করতে হবে ভারতীয় ক্রিকেটপ্রেমীদের।

গত ২৯ মার্চ শুরু হওয়ার কথা ছিল আইপিএল ১৩-র (IPL 13)। কিন্তু করোনার জেরে তা স্থগিত হয়ে যায়। তারপর থেকে জল্পনা চলছে টুর্নামেন্ট হওয়া নিয়ে। এখনও অনিশ্চিত টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের ভবিষ্যৎ। তাই আইসিসি (ICC) যদি এবছর বিশ্বকাপ স্থগিত করে, তবেই সেপ্টেম্বর থেকে নভেম্বরের মধ্যেই হবে আইপিএল। সেক্ষেত্রে সংকুচিত হতে পারে সূচিও। পাঁচ কিংবা ৬ সপ্তাহের মধ্যেই টুর্নামেন্ট শেষ করার চেষ্টা করা হবে বলে খবর।

এদিকে, এদিনের বৈঠকে বিরাট কোহলিরা কবে অনুশীলনে নামবেন, সে বিষয়েও আলোচনা হয়। ধরমশালা কিংবা আহমেদাবদের স্টেডিয়ামে বায়ো-বাবলের ব্যবস্থা করে সেখানেই প্র্যাকটিসে নামতে পারে টিম ইন্ডিয়া।

বিপি/আর এল