Menu

সর্বশেষ


গৌরীপুর(ময়মনসিংহ)থেকে সংবাদদাতা: করোনা কালিন সময়ে দুধ, ডিম, মাংসের চাহিদা তথা পুষ্টিসম্মত খাদ্য নিশ্চিত করতে ময়মনসিংহের গৌরীপুর উপজেলার খামারীদের পরামর্শ সহ বিভিন্ন রোগাক্রান্ত প্রাণীর জন্য চিকিৎসা প্রদান করে যাচ্ছে উপজেলা প্রাণিসম্পদ কর্মকর্তা ডা.আব্দুল করিমের নেতৃত্বে অফিসে কর্মরত অভিজ্ঞ চিকিৎসকগন।

কৃষক ও খামারিদের অর্থনৈতিক আয়ের চাঁকাকে সচল রাখতে খামারি ও কৃষকের পশুর যে কোন জরুরী চিকিৎসা সেবা ও পরামর্শে গৌরীপুরে প্রাণিসম্পদ দপ্তরে কর্মরত চিকিৎসকগন অফিস চলাকালিন সময়ে অফিস চত্বরে প্রতিদিন ৭০/৮০ অধিক অসুস্থ পশু দেখে পরামর্শ বা সেবার পাশাপাশি দুর-দুরান্তের খামারি ও কৃষকদের বাড়ি বাড়ি গিয়ে এবং সাপ্তাহিক ছুটির দিনেও সেবা দিচ্ছেন বিরামহীন ভাবে। এ ছাড়াও বিভিন্ন সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমেও ভিডিও কলের মাধ্যমে সরাসরি চিকিৎসা প্রদান করে যা সর্বমহলে প্রশংসার দাবীদার গৌরীপুর উপজেলা প্রাণি সম্পদ দপ্তরের অভিজ্ঞ চিকিৎসকগন।

এই বিষয়ে উপজেলার কয়েক জন খামারিদের সাথে জানতে চাইলে বলেন, গৌরীপুর উপজেলা প্রাণিসম্পদ কর্মকর্তার মাধ্যমে দপ্তরের সকল চিকিৎসকগন যে সেবা দিয়ে যাচ্ছেন তা আসলেই প্রশংসার দাবিদার। কেননা আমরা খুব সহজে জরুরী প্রয়োজনে মোবাইল ফোনের মাধ্যমে ঘরে বসে সেবা নিচ্ছি। সর্বপুরি গৌরীপুর উপজেলার প্রাণিসম্পদ অফিসের সকল চিকিৎসক খুব সুন্দর ভাবে উদ্যোগতাদের সেবা প্রদান করছেন।এতে আমরা আর্থিক ভাবে লাভবান হইতেছি।

উপজেলা প্রাণিসম্পদ কর্মকর্তা ডা: আব্দুল করিমের সাথে কথা বললে তিনি জানান, সাধারণ খেটে খাওয়া খামারীদের সমস্যায় সাড়া না দিয়ে উপায় নেই, ওনারাই মানুষের খাদ্য নিরাপত্তার অন্যতম ভিত্তি,অফিস প্রধান হিসেবে আমি আমার অফিসের অভিজ্ঞ ভেটেরিনারি সার্জন এবং উপ-সহকারি প্রাণি সম্পদ কর্মকর্তাগনের প্রতি কৃতজ্ঞ , খামারীদের অসহায়ত্ব, ওনাদের সামাজিক দায়বদ্ধতা থেকে মৃত্যু ভয়কে পিছনে ফেলে কাজ করে যাচ্ছেন দেশের জন্য।

তিনি বলেন করোনা কালিন সময়ে দুধ, ডিম, মাংসের চাহিদা তথা খাদ্য নিরাপত্তা নিশ্চিত করতে খামারি ভাই বোনদের পাশেই উপজেলা প্রাণিসম্পদ অফিসে কর্মরত সকলের সহযোগিতা থাকবে সবসময়।

বিপি/কেজে