Menu

সর্বশেষ


বাংলাপ্রেস ডেস্ক: বাংলাদেশের সঙ্গীত জগতের বিতর্কিত নাম মাইনুল আহসান নোবেল। কলকাতার একটি রিয়েলিটি শোতে অংশ নিয়ে আলোচনায় এসেছিলেন তিনি। বুক ভরা ভালোবাসা দিয়েই এদেশের শ্রোতারা তাকে গ্রহণ করেছিলেন।

কিন্তু এই নোবেল যে কিনা বাংলাদেশের শিল্পীদের গান কভার গেয়েই পরিচিতি পেলেন। কিছুটা জনপ্রিয়তা পেয়ে তাদেরকেই অপমান করলেন বাজে মন্তব্য করে। তা দেখে চুপ থাকেনি সঙ্গীতপ্রেমীরা। কারণ আমাদের মিউজিক ইন্ডাস্ট্রির ইতিহাস ঠুনকো নয়। সমালোচনার ঝড় উঠেছিল।

বিতর্কিত কর্মকাণ্ডের জন্য তাকে প্রশাসনের জেরার মুখেও পড়তে হয়। শেষ পর্যন্ত ক্ষমা চেয়ে ওই যাত্রায় রক্ষা পান এই বিতর্কিত নোবেল। এবার প্রকাশ হলো এই উঠতি অহংকারী গায়কের মৌলিক গান ‘তামাশা’। নোবেলের এই নিম্নমানের গান ও ভিডিও শ্রোতারা ছুঁড়ে ফেললেন। মুক্তির ৯ ঘণ্টার মধ্যে ৪ লাখবার দেখা হয়েছে। কিন্তু আশ্চর্যকর বিষয় হলো এই সময়ে মাত্র ১৭ হাজার লাইক পড়েছে।
আর ডিজলাইক দিয়েছেন ৯০ হাজারের বেশি মানুষ। আর ১৯ হাজারের বেশি মন্তব্যের মধ্যে বেশির ভাগ মানুষই তাকে তিরস্কার করেছেন।

কোনও গানের ক্ষেত্রে ডিজলাইক মানে অপছন্দের নতুন রেকর্ড গড়তে যাচ্ছেন নোবেল এমনটাই মনে করছেন সঙ্গীতপ্রেমীরা।
সম্প্রতি ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির নামে কুৎসা ছড়ানোর অভিযোগে নোবেলের বিরুদ্ধে মামলা দায়ের হয়েছে। মামলা করেছেন ত্রিপুরার এক যুবক। জানা গেছে, ভারতে গেলেই গ্রেপ্তার করা হবে নোবেলকে।

বিপি/কেজে