Menu

সর্বশেষ


বাংলাপ্রেস ডেস্ক: বাংলাদেশের করোনা পরিস্থিতি নিয়ে ব্রিটিশ গণমাধ্যম ‘দ্য ইকোনোমিস্ট’ আইসিডিডিআরবি’র বক্তব্য বিকৃত করেছে বলে দাবি করেছে সংস্থাটি। প্রতিষ্ঠানটির ওয়েবসাইটে প্রকাশিত এক বিজ্ঞপ্তিতে ঐ দাবিকে অপ্রাসঙ্গিক উল্লেখ করা হয়। এদিকে, কোনো জরিপ ছাড়াই এ ধরনের দাবি করায় বিশেষজ্ঞরা গণমাধ্যমটির প্রতিবেদনের গ্রহণযোগ্যতা নিয়ে প্রশ্ন তুলেছেন।

শুক্রবার (৫ জুন) ব্রিটিশ সাময়িকী দ্য ইকোনমিস্টের এক প্রতিবেদনে দাবি করা হয়, বাংলাদেশের রাজধানী ঢাকাতেই কোভিড নাইন্টিনে আক্রান্তের সংখ্যা সাড়ে সাত লাখের বেশি হতে পারে। কম সংখ্যক পরীক্ষার কারণে বাংলাদেশ, ভারত ও পাকিস্তানে সরকারি পরিসংখ্যানের চেয়ে করোনাভাইরাসে আক্রান্তের প্রকৃত সংখ্যা অনেক বেশি হতে পারে বলে দাবি করে গণমাধ্যমটি।

আন্তর্জাতিক উদরাময় রোগ গবেষণা ইনস্টিটিউট-এর নির্বাহী পরিচালক জন ক্লেমেনসকে উদ্ধ্বৃত করে ঐ প্রতিবেদন প্রকাশ করা হলেও তা প্রত্যাখ্যান করেছে প্রতিষ্ঠানটি।

এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে আইসিডিডিআর,বি জানায়, জন ক্লেমেনসের বক্তব্য ভুলভাবে উপস্থাপন করেছে দ্য ইকোনোমিস্ট। আইসিডিডিআর,বির কর্মকর্তাদের ৪ থেকে ৫ শতাংশ কর্মী করোনায় আক্রান্ত হলেও এই প্রতিষ্ঠানের সঙ্গে গোটা রাজধানীকে তুলনা করা হয়েছে বলেও উল্লেখ করা হয়। কোনো জরিপ ছাড়াই এ ধরনের দাবি করায় বিশেষজ্ঞরা গণমাধ্যমটির প্রতিবেদনের গ্রহণযোগ্যতা নিয়ে প্রশ্ন তুলেছেন।

আইইডিসিআর উপদেষ্টা ড. মুশতাক হোসেন বলেন, কোন বেসিসে ক্যালকুলেশনটা করা হয় সেটা তারা প্রকাশ করেনি। প্রকাশ করা ছাড়া সাদামাটাভাবে এটা বললে তো সেটার গ্রহণযোগ্যতা নিয়ে প্রশ্ন আসে।

জনস্বাস্থ্য বিশেষজ্ঞরা বলছেন, প্রকৃত করোনা আক্রান্তের সংখ্যা নির্ণয়ে রাজধানী ঢাকার পাশাপাশি সারাদেশে জরিপ করতে হবে।

বিপি/আর এল