Menu

সর্বশেষ


আনিছুর রহমান মানিক, ডোমার (নীলফামারী) থেকে : নীলফামারীর ডোমারে ঘুর্ণিঝড়ে গাছের নিচে চাপা পড়ে ইউপি চেয়ারম্যানের ভাইয়ের মৃত্যু, ৬জন ব্যাক্তি গুরুত্বর আহত হয়েছে। ঘটনাটি, উজেলার জোড়াবাড়ী ইউনিয়নের মিরজাগঞ্জ রেল স্টেশন বাজারে।

সরেজমিনে জানা যায়, রোববার (২৪মে) মানুষ যখন ঈদের কেনাকাটা নিয়ে ব্যস্ত। এমন সময় রাত ৯টায় মিরজাগঞ্জ রেল স্টেশন বাজারের রেল ঘুন্টির পার্শ্বে থাকা শত বছরের পুরাতন বটগাছটি ঝড়ে ভেঙ্গে পড়ে যায়। এ সময় বিভিন্ন দোকানে ও রাস্তায় থাকা মানুষ গাছের নিচে চাপা পড়ে। ঘটনা স্থলে উক্ত ইউনিয়নের ইউপি চেয়ারম্যান আবুল হাচানের ছোট ভাই মোসলেম উদ্দিন (৬৫) মারা যায় এবং ৬জন গুরুত্বর আহত হয়। সংবাদ পেয়ে ডোমার ফায়ার সার্ভিস ও সিভিল ডিফেন্স এর স্টেশন অফিসার ফরহাদ হোসেনের নেতৃত্বে উদ্ধারকারী দল ঘটনা স্থলে গিয়ে তাদের উদ্ধার করে।

আহত ব্যাক্তিরা হলেন, মৃত মোহাম্মদ আলীর ছেলে তহিদুল ইসলাম (৫০), মোশারফ হোসেনের ছেলে সুমন (১৮), মৃত নোবার উদ্দিন মুন্সির ছেলে লিয়াকত (৫০) ও তার ভাই লাবু (৩২), মৃত জয়নালের ছেলে আমির হোসেন (৬৫), মৃত আব্দুস সামাদের ছেলে হাবিবুল (৪৫)। আহতদের রংপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল ও উপজেলা স্বাস্থ কমপ্লেক্সে ভর্তি করা হয়। বটগাছটি পড়ে লিয়াকত আলীর কাপড়ের দোকান, স্বপনের ডাচ্ধসঢ়; বাংলা ব্যাংক, বাচ্চুর মুদিখানা, আমির হোসেনের পান দোকান ও সামসুল হকের কসমেটিক্স দোকান চাপা পড়ে।

এতে প্রায় ১৫ লক্ষাধীক টাকা ক্ষতি সাধন হয় বলে ইউপি চেয়ারম্যান আবুল হাচান জানান। এ ছাড়াও ঝড়ের তান্ডবে আশপাশের এলাকার শতাধীক ঘড় বাড়ি ও ২হাজারের বেশী গাছপালা ভেঙ্গে তছনছ হয়ে ব্যপক ক্ষতি সাধন হয়। সরকার বা জনপ্রতিনিধিদের কাছ থেকে সহযোগিতা কামনা করেন ভুক্তভুগি পরিবারের লোক জন।

বিপি/আর এল