Menu

সর্বশেষ


আব্দুল মালেক নিরব : লক্ষীপুর জেলার সর্বস্তরের জনগণকে ঈদের শুভেচ্ছা জানিয়েছেন বঙ্গবন্ধুর স্নেহ ধন্য,বঙ্গবন্ধুর পরশ মাখা স্নেহের হাত বুলিয়ে দিয়েছিলেন যার মাথায় সেই বীর মুক্তিযোদ্ধা আলহাজ্ব সৈয়দ আবুল কাসেম । সোমবার (২৫ মে) পবিত্র ঈদুল ফিতর উপলক্ষে এ শুভেচ্ছা জানান তিনি।

জানা যায়, লক্ষীপুর সদর উপজেলার দক্ষিন হামছাদী ইউনিয়নের গংগাপুর গ্রামের কৃতি সন্তান তিনি। ১৯৭০ইং সনে তিনি দালাল বাজার এন কে উচ্চ বিদ্যালয়ের ৭ম শ্রেণির ছাত্র এবং স্কুল ছাত্রলীগের সভাপতি ছিলেন, উনার বাবা বীর মুক্তিযোদ্ধ সৈয়দ মোঃ সাহাদাৎ উল্যাহ আগড়তলা ষড়যন্ত্র মামলার তহবিল সংগ্রহ কারী ছিলেন। সেই সুবাদে বঙ্গবন্ধু ঐ সময় উনাদের বাড়িতে আসেন আর তিনি বঙ্গবন্ধুর স্নেহ পান। চার ভাইয়ের মাঝে তিনি বড়, আর উনার মেজোভাই সৈয়দ বেলাল হোসেন, অতিরিক্ত সচিব সেবা ও সুরক্ষা স্বরাষ্ট্রমন্ত্রনালয়, সেজোভাই সৈয়দ ইকবাল হোসেন, পরিচালক দুদক,ঢাকা, এবং ছোটো ভাই এডভোকেট সৈয়দ কামরুল হোসেন, বাংলাদেশ সুপ্রিম কোর্টে আইনজীবী । মুক্তিযোদ্ধা সৈয়দ মোহাম্মদ আবুল কাসেম বলেন,লক্ষীপুর জেলা সহ সারা বাংলাদেশের মুসলমানদের জানাই আন্তরিক শুভেচ্ছা ও ঈদ মোবারক।

আমি বিশ্ব মুসলিমের অব্যাহত সুখ, শন্তি, সমৃদ্ধি ও কল্যাণ কামনা করি। তিনি আরও বলেন,মাসব্যাপী কঠোর সিয়াম সাধনার পর মুসলমানদের জীবনে একস্বর্গীয় শান্তি ও আনন্দের বার্তা নিয়ে আসে ঈদুল ফিতর। ঈদুল ফিতরের উৎসব মুসলমানদের নিবিড় ভাতৃত্ববোধে উদ্বুদ্ধকরে। মাসব্যাপী রমজানের আত্মশুদ্ধির মহান দীক্ষার মধ্য দিয়ে আসে ঈদুল ফিতরের আনন্দ ঘনমুহূর্ত। দেশের বিদ্যমান ক্রান্তিলগ্নে সব ভেদা ভেদ ভুলে সবাইকে ঈদের আনন্দ নিজেদের ভাগ করে নিতে হবে। তাই ঈদুল ফিতরের শিক্ষা থেকে আমাদের অঙ্গীকার হোক সব হিংসা, বিদ্বেষ ও হানা হানি থেকে মুক্ত হয়ে ন্যায়, সাম্য, ঐক্য, ভ্রাতৃত্ব, দয়া, সহানুভূতি,মানবতা ও মহামিলনের এক ঐক্যবদ্ধ ও ভালোবাসাপূর্ণ সমাজ এবং দেশ গঠনের জন্য এক যোগে কাজ করা।

এই বীর মুক্তিযোদ্ধা আলহাজ্জ সৈয়দ মোহাম্মদ আবুল কাসেম আরোও বলেন, বিশ্বব্যাপী করোনা ভাইরাসের আঘাতে এবারে হয়তো পূর্বের ন্যায় সবাইকে নিয়ে ঈদের আনন্দ উদযাপন করা সম্ভব হবেনা। তবুও আমরা যে যেখানেই থাকিনাকেন ঘনিষ্ঠজন, নিকট জন প্রবাসী ভাইদের ঈদের আনন্দ ভাগ করে নেব কোনো অসহায় ও দুস্থ মানুষ যেন অভুক্তনা থাকে সেজন্য যারা সচ্ছল ব্যক্তি তারা যেন তাদের পাশে সহযোগিতার হাত বাড়িয়ে দেন, যাতে নিরন্ন মানুষরা ও ঈদের আনন্দের অংশীদার হতে পারে। তিনি আরো বলেন, করোনা ভাইরাসের মহামারিতে এখন বিশ্ব সম্প্রদায়ের মধ্যে বিরাজ করছে নিরানন্দ,ভয় ও আতঙ্ক।

এ অদৃশ্য আততায়ী করোনার কবল থেকে মানুষকে রক্ষা করতে আমি মহান রাব্বুল আলামীনের নিকট দোয়া করি। তিনি বলেন,পবিত্র এদিনে বাংলাদেশের প্রতিটি গৃহে প্রবাহিত হোক শান্তির অমিয় ধারা।পবিত্র ঈদুল ফিতরে আমি এই কামনা করি।

বিপি/আর এল