Menu

সর্বশেষ


আলাউদ্দিন হোসেন’র একগুচ্ছ ছড়া

১.ফলের ঋতু
আলাউদ্দিন হোসেন

গ্রীষ্মকালে বাংলায় আসে
আমের সাথে জাম
ধানের গন্ধে মাঠ প্রান্তর
কৃষক ঝরায় ঘাম।

বাঙ্গি আসে লিচু আসে
তরমুজেতে জল
জাতীয় ফল কাঁঠাল আসে
আসে নানা ফল।

আনারসের মিষ্টি রসে
জুড়ায় দেহ প্রাণ
চারিদিকে ছড়িয়ে পড়ে
মিষ্টি আমের ঘ্রাণ।

 

২.ফুলে-ফলে গ্রীষ্ম
আলাউদ্দিন হোসেন

আম কাঁঠালে ভরে ওঠে
রুপের গ্রীষ্মকাল
তরমুজ ও লিচুর সাথে
পাকে কাঁচা তাল।

গোলাপ টগর জবা বেলি
হিমচাঁপা জারুল
পলাশ বকুল কৃষ্ণচূড়া
হিজল বরুণ পারুল।

জাম আতা জামরুল
আমলকি আর পেঁপে
রং বাহারি রসালো ফল
গাছে আসে ঝেপে।

জিনিয়া গুলাচ নাগবল্লী
সোনালু বসায় মেলা
গ্রীষ্মজুড়ে ভেসে চলে
রঙিন ফুলের ভেলা।

 

৩.গ্রীষ্মকাল
আলাউদ্দিন হোসেন

আম পাকে জাম পাকে
পাকে সোনা ধান
রঙিন ফলের মিষ্টি ঘ্রাণে
জুড়িয়ে যায় প্রাণ।

কাঁঠাল পেঁপে আমলকি
পাকে কাচা তাল
গাছে গাছে লিচু পেকে
হয়ে যায় লাল।

বাঙ্গি পেকে ফাটল ধরে
তরমুজে জল
আনারস জামরুল
নানা রঙের ফল।

 

৪.বৈশাখ
আলাউদ্দিন হোসেন

বৈশাখ এলে বাঙালি জাতি
পান্তা-ইলিশ খায়
গাছের তলে মেলা বসায়
বৈশাখী গান গায়।

কৃষ্ণচূড়া গাছের তলে
বসে হাজার মেলা
বৈশাখ হাওয়ায় কৃষ্ণচূড়া
হাসে সারাবেলা।

শিশুকিশোর মেলার পথে
গুটিগুটি পায়
মনের সুখে হেটে চলে
বৈশাখী গান গায়।

 

৫.কৃষ্ণচূড়ার ঢং
আলাউদ্দিন হোসেন

গাছে গাছে কৃষ্ণচূড়া
খেলছে সারাবেলা
বৈশাখ হাওয়ায় উড়ে উড়ে
ভাসাচ্ছে তার ভেলা।

আকাশে বাতাসে মনের মত
ছড়াচ্ছে কত রং
ইচ্ছেমত যখন তখন
করছে নানা ঢং।

রং মাখা ঢং দেখে
নাচছে শিশু কিশোর
বাংলাজুড়ে কৃষ্ণচূড়া
বসিয়েছে মেলার আসর।

বিপি/আর এল