Menu

সর্বশেষ


নিজস্ব প্রতিবেদক: অসাম্প্রদায়িক চেতনায় উজ্জীবিত হয়ে যুক্তরাষ্ট্রের নিউজার্সি অঙ্গরাজ্যের আটলান্টিক সিটি স্কুল বোর্ডের নির্বাচিত সদস্য বাংলাদেশি আমেরিকান সুব্রত চৌধুরী পবিত্র চার ধর্মগ্রন্থ ছুঁয়ে শপথ নিয়েছেন।গত শুক্রবার সন্ধ্যায় আটলান্টিক সিটি স্কুল বোর্ডের সভা কক্ষে অনুষ্ঠিত হয় এ শপথ অনুষ্ঠান।তাকে শপথ বাক্য পাঠ করান আটলান্টিক সিটি স্কুল বোর্ডের সলিসিটর ট্র্যাসি রাইলি। এ সময় তিনি মুসলিম, হিন্দু, খ্রীষ্টান ও বৌদ্ধ সম্প্রদায়ের পবিএ চার ধর্মগ্রন্থ কোরআন, গীতা,বাইবেল ও ত্রিপিটকে হাত রেখে শপথ নিয়ে বেশ প্রশংশিত হয়েছেন।                           শপথ গ্রহনের সময় তার পরিবারের সদস্যরা তার সাথে উপস্থিত ছিলেন। শপথ গ্রহন শেষে তিনি স্কুল বোর্ড এর সভায় যোগ দেন।এসময় হল ভর্তি বিভিন্ন কমিউনিটির বিপুল সংখ্যক লোকজন তাকে করতালির মাধ্যমে অভিনন্দন জানান।
গতবছর ৫ নভেম্বর অনুষ্ঠিত আটলান্টিক সিটির স্কুল বোর্ড নির্বাচনে বাংলাদেশি আমেরিকান সুব্রত চৌধুরী বিপুল ভোটে জয়লাভ করেছিলেন।আগামী তিন বছর পর্যন্ত তিনি আটলান্টিক সিটি স্কুল বোর্ড এর সদস্য হিসেবে কাজ করবেন।
শপথ গ্রহনের পর সুব্রত চৌধুরী তার প্রতিক্রিয়া ব্যক্ত করে বলেন, চলতি বছর সারা পৃথিবীতে ‘মুজিববর্ষ’ পালিত হবে।সেই ‘মুজিববর্ষ’-এ মুজিব আদর্শের একজন সৈনিক হিসাবে যে অসাম্প্রদায়িক চেতনা অন্তরে লালন করে বড় হয়েছেন, তিনি সেই অসাম্প্রদায়িক চেতনারই বহি:প্রকাশ ঘটিয়েছেন বলে উল্লেখ করেন।

তিনি বলেন, ঝঞ্জা বিক্ষুব্ধ পৃথিবীতে ধর্ম নিয়ে যে হানাহানি চলছে তার বিরুদ্ধে এটা তার একটা মৌন প্রতিবাদ। এছাড়া গত নির্বাচনে আটলান্টিক সিটির বিভিন্ন কমিউনিটির লোকজন তাকে ভোট দিয়ে নির্বাচিত করেছেন, তাদের প্রতি কৃতজ্ঞতা ও সম্মান প্রদর্শনের জন্যই তার এ ক্ষুদ্র প্রয়াস মাত্র।
সুব্রত চৌধুরীর জন্ম বাংলাদেশের চট্টগ্রামে।পটিয়া উপজেলার কচুয়াই গ্রামের বাসিন্দা দীপেশ চৌধুরী ও রাধা চৌধুরীর জ্যৈষ্ঠ সন্তান সুব্রত চৌধুরী। ২০১২ সালে অভিবাসী হয়ে সপরিবারে যুক্তরাষ্ট্রে আসেন। আটলান্টিক কাউন্টি গভর্নমেন্ট এর হিউম্যান সার্ভিসেস স্পেশালিষ্ট পদে কর্মরত সুব্রত চৌধুরী যুক্তরাষ্ট্রে আসার পর থেকেই সংবাদ মাধ্যমের সাথে যুক্ত হয়ে নিরলসভাবে কমিউনিটি সাংবাদিকতায় গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকাও রেখে চলেছেন। কমিউনিটি সাংবাদিকতায় গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকার জন্য ইতোমধ্যে তিনি পুরস্কৃতও হয়েছেন।তিনি ইতোমধ্যে ইউএস কংগ্রেসম্যান জেফ ভ্যান ড্রিউ এর কাছ থেকে ‘কংগ্রেসনাল প্রোক্লমেশন’ নিউজার্সি অঙ্গরাজ্য সিনেটর ক্রিস এ ব্রাউন এর কাছ থেকে ‘ সিনেট কমেনডেসন’ লাভ করেছেন।
সুব্রত চৌধুরী সাংবদিকতার পাশাপাশি ছড়া, গল্প লিখে থাকেন, অনুবাদক হিসাবেও তার খ্যাতি আছে।ইতোমধ্যে ছড়া গ্রন্থ ‘বিশ্ব বেহায়া ও ‘আতু বুতু কাতু কুতু’ শিরোনামে তার রূপকথার বই প্রকাশিত হয়েছে। আবৃত্তি শিল্পী হিসাবে প্রবাসের সাংস্কৃতিক কর্মকান্ডে তার সদর্প বিচরণ রয়েছে।আটলান্টিক সিটির পরিচিত ও প্রিয় মুখ সুব্রত চৌধুরী সামাজিক কর্মকান্ডেও নিজেকে সক্রিয় রেখেছেন।বাংলাদেশ এসোসিয়েশন অব আটলান্টিক কাউনটি,এলায়েন্স অব সাউথ এশিয়ান আমেরিকান লেবার (আসাল), সাউথ জার্সি পয়েটস কালেকটিভ, এনএএসিপি, হিস্পানিক এসোসিয়েশন অব আটলান্টিক কাউন্টি এর সাথে ওতপ্রোতভাবে জড়িত থেকে সামাজিক কর্মকাণ্ডে নিজেকে ব্যাপৃত রেখেছেন।
তিনি যুক্তরাষ্ট্রের মূলধারার সামাজিক ও রাজনৈতিক কর্মকান্ডেও নিজেকে সক্রিয় রেখেছেন।সুব্রত চৌধুরী ইউনাইটেড স্টেটস প্রেস এজেন্সির একজন সদস্য। এছাড়া তিনি আমেরিকা-বাংলাদেশ প্রেস ক্লাবেরও একজন সদস্য।
সাংস্কৃতিক ব্যক্তিত্ব সুব্রত চৌধুরী প্রথম এশিয়ান আমেরিকান হিসাবে আটলান্টিক কাউন্টির ‘সংস্কৃতি ও ঐতিহ্য বিষয়ক পরামর্শক পর্ষদ’ এর সদস্য হিসাবে আগামী তিন বছরের জন্য নিয়োগ পেয়েছেন।

সুব্রত চৌধুরী চট্টগ্রাম এর বোয়ালখালী উপজেলার উত্তর ভূর্ষি গ্রামের শৈবাল শংকর চৌধুরী ও রানী চৌধুরীর কনিষ্ঠ জামাতা।তিনি স্ত্রী লাকী চৌধুরী, দুই সন্তান অর্ঘ্য চৌধুরী ও অদ্রি চৌধুরীকে নিয়ে আটলান্টিক সিটির চেলসি হাইটসে বসবাস করেন।
আটলান্টিক সিটির স্কুল বোর্ড নির্বাচনে তাকে বিজয়ী করার জন্য তিনি বাংলাদেশি কমিউনিটিসহ অন্যান্য কমিউনিটির ভোটারদের আন্তরিক ধন্যবাদ জানান। নির্বাচনী প্রচারে যারা নিরলস পরিশ্রম করেছিলেন, তাঁদের প্রতিও তিনি ধন্যবাদ ও কৃতজ্ঞতা জানান। তিনি তার নতুন দায়িত্ব যাতে সৎ,নিষ্ঠা ও যোগ্যতার সাথে পালন করতে পারেন সেজন্য সবার দোয়া, আশীর্বাদ,সমর্থন ও সহযোগীতা কামনা করেছেন।
শপথ অনুষ্ঠানে আটলান্টিক সিটি কাউন্সিলের সভাপতি জর্জ টিবিট, আটলান্টিক সিটি কাউন্সিলের সহসভাপতি এম ও ডেলগারডো, কাউন্সিলওম্যান লা টয়া ডান্সটন, কাউন্সিলর মোঃ হোসাইন মোরশেদ, কাউন্সিলর এম আনজুম জিয়া,বাংলাদেশ এসোসিয়েশন অব সাউথ জারসির ট্রাস্টি বোর্ডের চেয়ারম্যান আবদুর রফিক, সভাপতি জহিরুল ইসলাম বাবুল, আটলানটিক সিটি ডেমোক্র্যাটিক কমিটির চেয়ারওম্যান গেন ক্যালাওয়ে লুইস, ভিয়েতনামী কমিউনিটি নেতা মি: লি, চাইনীজ কমিউনিটি নেতা মিঃ চাই, ডেমোক্র্যাটিক দলের নেতা ডারউড,পুলিশ কর্মকর্তা সুমন মজুমদার,সংগীত শিল্পী শীলা আজিজ সহ কমিউনিটির গণ্যমান্য ব্যক্তিরা উপস্থিত ছিলেন।
চার পবিএ ধর্মগ্রন্থ কোরআন, গীতা, বাইবেল ও ত্রিপিটক ছুঁয়ে সুব্রত চৌধুরীর শপথ নেওয়ার ঘটনাটি আটলান্টিক সিটির মুসলিম, হিন্দু, খ্রীষ্টান ও বৌদ্ধ সম্প্রদায়সহ প্রবাসী বাংলাদেশিদের কাছে বেশ প্রশংসিত হয়েছে।

বিপি।সিএস


সর্বশেষ সংবাদ

এই বিভাগের আরও সংবাদ