Menu

সর্বশেষ


বিদেশ ডেস্ক : মার্কিন পররাষ্ট্রমন্ত্রী মাইক পম্পেও বৃহস্পতিবার বলেছেন, সৌদি আরবের তেল স্থাপনায় হামলার কারণে সৃষ্ট সংকট যুক্তরাষ্ট্র শান্তিপূর্ণভাবে সমাধান করতে চায়। ইরান ‘সর্বাত্মক যুদ্ধের’ আশঙ্কা ব্যক্ত করার পর তিনি এমন কথা বললেন। খবর এএফপি’র।

পম্পেও সৌদির দু’টি তেল স্থাপনায় সপ্তাহান্তে নাটকীয় হামলার জন্য ইরানকে দায়ী করে ‘যুদ্ধ কর্মকান্ডের’ নিন্দা জানান। এ হামলার কারণে সৌদি আরবের তেল উৎপাদন প্রায় অর্ধেক হ্রাস পেয়েছে। এ ধরনের উস্কানিমূলক কর্মকান্ড এ অঞ্চলে চরম উত্তেজনার সৃষ্টি করেছে।

উল্লেখ্য, সেখানে প্রাধান্য বিস্তারে সৌদি আরব ও ইরান দশকের পর দশক ধরে বিভিন্ন ধরনের কর্মকান্ড চালিয়ে আসছে।
রিয়াদ ও আবুধাবিতে মিত্র দেশগুলোর সাথে বৈঠকের পর পম্পেও বলেন, তেল স্থাপনায় ইরানের হামলার কারণে এ অঞ্চলে অভূতপূর্ব ঐক্যমতের সৃষ্টি হয়েছে। এদিকে ইরান তাদের বিরুদ্ধে উত্থাপিত অভিযোগ প্রত্যাখান করেছে এবং ইয়েমেন বিদ্রোহীরা সৌদি তেল স্থাপনায় হামলার দায়িত্ব প্রত্যাখান করেছে। পম্পেও বলেন, যুক্তরাষ্ট্র এ সংঘাত নিরসনের উপায় খুঁজে বের করার ব্যাপারে আগ্রহী। তিনি সাংবাদিকদের বলেন, এ সংকটের ‘আমরা একটি শান্তিপূর্ণ সমাধান দেখতে চাই। আমি মনে করি আমরা সে লক্ষ্যে সে ধরনের আচরণ প্রদর্শনও করেছি।’‘আমি আশা করি ইরানও একই ধরনের আচরণ প্রদর্শন করবে।’

বিপি/আর এল