Menu

সর্বশেষ


ইমদাদুল হক ইমরান, ধুনট (বগুড়া) থেকে: বগুড়ার ধুনট উপজেলার কালেরপাড়া ইউনিয়নে প্রেমের ফাঁদে ফেলে কৌশলে নিজের ঘরে ডেকে নিয়ে তালাকপ্রাপ্ত এক যুবতিকে ধর্ষনের অভিযোগ পাওয়া গেছে। ধর্ষনের শিকার মেয়েটি শনিবার রাতে বাদী হয়ে থানায় একটি লিখিত অভিযোগ দিয়েছে। রোববার দুপুর ২টার দিকে থানা পুলিশ ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছেন।

অভিযোগ সূত্রে জানা যায়, ধর্ষনের শিকার হতদরিদ্র মেয়েটি আড়কাটিয়া গুচ্ছ গ্রামের বাসিন্দা। প্রায় ২ বছর আগে তার বিয়ে হয়েছিল। কিন্ত দাম্পত্য জীবনে বনিবনা না হওয়ায় ৪ মাস আগে মেয়েটিকে তার স্বামী তালাক দিয়েছে। তালাকের পর মেয়েটি বাবার বাড়িতে থেকে টুপি তৈরী করে জীবিকা নির্বাহ করে। এ অবস্থায় উপজেলার আড়কাটিয়া গুচ্ছ গ্রামের মুক্তার হোসেনের ছেলে তারেক রহমানের (২১) সাথে মেয়েটির প্রেমের সম্পর্ক গড়ে উঠে। বিয়ের প্রলোভনে ১৩ আগষ্ট সকাল ১১টার দিকে তারেক রহমান মেয়েটিকে কৌশলে নিজ ঘরে ডেকে নেয়। এ সময় ওই বাড়িতে অন্য কেউ না থাকার সুযোগে তারেক রহমান মেয়েটিকে ঘরে আটকে রেখে ধর্ষন করে। মেয়েটি ধর্ষনের বিষয়টি তার মা-বাবাকে জানায়। পরে মেয়েটির পরিবারের পক্ষ থেকে এ বিষয়টি তারেকের বাবাকে জানিয়ে কোন বিচার পায়নি।

ফলে মেয়েটি বাদী হয়ে তারেক রহমানের বিরুদ্ধে ধর্ষনের অভিযোগ দিয়েছে। এদিকে ঘটনার পর থেকে তারেক রহমান পলাতক রয়েছে। ধুনট থানার সহকারী পরিদর্শক (এসআই) প্রদীপ কুমার বর্মন বলেন, প্রাথমিক তদন্তে অভিযোগের সত্যতা পাওয়া গেছে। ছেলের বাবা মেয়েটিকে বিয়ের আশ্বাস দিয়েছে। মেয়ের দাবী অনুযায়ী বিয়ে সম্পন্ন না হলে আইনী ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

বিপি/কেজে