Menu

সর্বশেষ


আজিজুল হাকিম পাভেল, জাককানইবি থেকে : জাতীয় কবি কাজী নজরুল বিশ্ববিদ্যালয়ের সঙ্গীত বিভাগের প্রভাষক সাদমান তাহরীফ প্রত্যয় এর বিরুদ্ধে শিক্ষক ও শিক্ষার্থীদের সাথে অসদাচরণ এর অভিযোগ এনে তার স্থায়ী বহিষ্কার চেয়ে স্মারকলিপি প্রদান ও মৌন মিছিল করে সঙ্গীত বিভাগের আন্দোলনরত শিক্ষার্থীরা।

অভিযোগকারীদের দাবি,সঙ্গীত বিভাগের শিক্ষকদের গরু বলে আখ্যায়িত করার কারনেই তাদের এই আন্দোলন।এর আগেও এই শিক্ষকের বিরুদ্ধে শিক্ষার্থীরা শিক্ষক শিক্ষার্থী সম্পর্কের নীতিবিরুদ্ধে যায় এমন অভিযোগ করেন। শিক্ষার্থীদের সঙ্গে বাজে ভাষা ব্যবহার, মেয়ে শিক্ষার্থীদের নিয়ে কুরুচিপূর্ণ বক্তব্য ও পরীক্ষায় নম্বরে স্বজনপ্রীতি করার বিভিন্ন অভিযোগে প্রভাষক সাদমান তাহরীফ প্রত্যয় এর স্থায়ীভাবে বহিষ্কার দাবিতে গত (২ জানুয়ারি) শিক্ষার্থীরা বিক্ষোভ মিছিল করেন।

শিক্ষার্থীদের এ অভিযোগের ভিত্তিতে পরবর্তীতে বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসন অভিযুক্ত শিক্ষককে সে সময়ে চলমান সকল শিক্ষাবর্ষের ক্লাস থেকে অব্যাহতি দেয়। প্রভাষক সাদমান তাহরীফ প্রত্যয় এ বিশ্ববিদ্যালয়ের সংগীত বিভাগের শিক্ষার্থী ছিলেন এবং বর্তমানে এ বিভাগের অস্থায়ী শিক্ষক হিসেবে শিক্ষকতা করছেন।

সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেইসবুকে অভিযুক্ত শিক্ষকের একটি পোষ্টের (ছবি সম্বলিত) প্রেক্ষিতে শিক্ষক ও শিক্ষার্থীরা ক্ষুব্ধ হয়ে রেজিস্ট্রার বরাবর অভিযোগ প্রদান করে। তারপর একটি প্রতিনিধি দল উপাচার্যের সাথে বৃহঃস্পতিবার (২২ নভেম্বর) বেলা ১১টায় দেখা করে স্থায়ী বহিষ্কার চায় অভিযুক্ত শিক্ষকের।

 

বিষয়ের সত্যতা নিশ্চিত করে রেজিস্ট্রার (ভারপ্রাপ্ত) কৃষিবিদ ড. হুমায়ুন কবীর বলেন আমরা অভিযোগ পেয়েছি বিষয়টি পর্যবেক্ষন করে ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।

এবিষয়ে অভিযুক্ত শিক্ষক সাদমান তাহরীফ প্রত্যয় বাংলাপ্রেসকে বলেন- আমার বলার কিছুই নেই,আমি সকলের ভালো চাই ।শিক্ষার্থীদের চলমান আন্দোলনের কারনে আমার এই পদত্যাগ নয়।আমি মনে করছি আমার সঙ্গীতে আরো সময় দেওয়া দরকার,সেজন্যেই আমার এই নীতিগত সিদ্ধান্ত।আমি আমার পদত্যাগপত্র রেজিস্ট্রার বরাবর ইমেইল এবং কুরিয়ারে পাঠিয়ে দিয়েছি।আশা করছি দুদিনের মধ্যে তারা তাদের প্রত্যাশার ফল পাবে ।

বাংলাপ্রেস/আর এল