ফৌজদারি অভিযোগে অভিযুক্ত, শিগগির গ্রেফতার হতে পারেন ট্রাম্প

বাংলাপ্রেস ডেস্ক
২ আগস্ট, ২০২৩

নিজস্ব প্রতিবেদক: যুক্তরাষ্ট্রে ২০২০ সালের প্রেসিডেন্ট নির্বাচনের ফলাফল উল্টে দেয়ার চেষ্টার অভিযোগে দেশটির সাবেক প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পের বিরুদ্ধে চারটি অভিযোগ আনা হয়েছে। এ নিয়ে গত চার মাসের মধ্যে তৃতীয়বারের মতো ফৌজদারি অভিযোগে অভিযুক্ত হলেন ট্রাম্প। এ নিয়ে শিগগির গ্রেফতার হবার আশঙ্কা করছেন ট্রাম্প নিজেই।
বুধবার (২ আগস্ট) বার্তা সংস্থা রয়টার্সের প্রতিবেদনে জানা, সরকারের বিশেষ কাউন্সেল জ্যাক স্মিথ ট্রাম্পের বিরুদ্ধে এ তদন্তের নেতৃত্ব দিচ্ছেন। স্থানীয় সময় মঙ্গলবার (১ আগস্ট) তিনি ওয়াশিংটন ডিসিতে ৪৫ পাতার ওই অভিযোগপত্র জমা দেন।
এতে বলা হয়, নির্বাচনে পরাজিত হওয়ার পরও ট্রাম্প ক্ষমতা আঁকড়ে রাখতে চেয়েছিলেন। তাই ২০২০ সালের ৩ নভেম্বর অনুষ্ঠিত নির্বাচনের দুমাসের বেশি সময় পর তিনি এ বলে মিথ্যা ছড়িয়েছিলেন যে, নির্বাচনের ফলাফলে জালিয়াতি হয়েছে এবং প্রকৃতপক্ষে তিনিই জিতেছেন।
ট্রাম্পের বাক্‌স্বাধীনতা রয়েছে উল্লেখ করে ৪৫ পাতার অভিযোগে বলা হয়েছে, তবে তিনি নির্বাচনের ফলাফল উল্টে দেয়ার জন্য বেআইনি পথ বেছে নিয়েছিলেন। ট্রাম্পের বিরুদ্ধে আনা অভিযোগগুলো হলো: যুক্তরাষ্ট্রকে প্রতারিত করার চক্রান্ত, সরকারি কাজে বাধা দেয়ার ষড়যন্ত্র, দ্রোহিতায় উসকানি এবং মিথ্যা বিবৃতি দেয়ার ষড়যন্ত্র।
সরকারের বিশেষ কাউন্সেলের দেয়া অভিযোগপত্রের পর কাল (বৃহস্পতিবার, ৩ আগস্ট) ট্রাম্পকে ফেডারেল আদালতে হাজির হওয়ার নির্দেশ দেয়া হয়েছে।
২০২০ সালের প্রেসিডেন্ট নির্বাচনে ডোনাল্ড ট্রাম্প হেরে যাওয়ার পর নির্বাচনের ফলাফল প্রত্যাখ্যান করেন তার সমর্থকরা। এরপর ২০২১ সালের ৬ জানুয়ারি ক্যাপিটাল হিলে হামলা চালান তারা। পরে এ বিষয়ে গঠিত কমিটির সদস্যরা ট্রাম্পের বিরুদ্ধে তদন্তে নামেন।
এর আগে গোপনীয় সরকারি দলিল অপব্যবহারের অভিযোগ আনা হয়েছে তার বিরুদ্ধে। জ্যাক স্মিথ এটা নিয়ে জুন মাসেই সাবেক প্রেসিডেন্টের বিরুদ্ধে মামলা দায়ের করেছেন। এছাড়া ট্রাম্পের বিরুদ্ধে ২০১৬ সালে নিউইয়র্কে পর্ন তারকা স্টর্মি ড্যানিয়েলসের মুখ বন্ধ রাখার জন্য তাকে গোপনে অর্থ দেয়ার ব্যাপারে মিথ্যাচারের অভিযোগ আনা হয়েছে। সেই মামলার বিচার শুরু হবে আগামী বছরের মার্চ মাসে। সপ্তাহ দুয়েক আগে ট্রাম্প ক্যাপিটাল হিলে দাঙ্গার ঘটনায় গ্রেপ্তারের শঙ্কার কথা জানিয়েছিলেন।
১৮ জুলাই ট্রুথ স্যোশাল প্ল্যাটফর্মে ট্রাম্প বলেছেন, ১৬ জুলাই রাতে সরকারের বিশেষ কাউন্সেল জ্যাক স্মিথের কাছ থেকে তিনি একটি চিঠি পেয়েছেন। তাতে জানানো হয়েছে, ২০২০ সালের প্রেসিডেন্ট নির্বাচনের ফল উল্টে দেয়ার চেষ্টার ঘটনায় তাকে টার্গেট করে তদন্ত চলছে।
ট্রাম্প তার পোস্টে জানান, একটি গ্র্যান্ড জুরির কাছে তাকে আত্মসমর্পণ করতে বলা হয়েছে, বেশিরভাগ সময়ই যার অর্থ গ্রেপ্তার এবং অভিযোগনামা দায়ের।

বিপি।এসএম