Menu

সর্বশেষ
সর্বশেষ


বাংলাপ্রেস ডেস্কঃ সদ্য টিনএজে পা দিয়েছিল মেয়েটি। কিন্তু হঠাৎই নিজের বাড়িতেই তাঁকে মুখোমুখি হতে হয়েছিল এক ভয়ঙ্কর ঘটনার, যা মানসিক ভাবে পুরোপুরি নাড়িয়ে দিয়েছিল তাঁকে। ধর্ষণের চেষ্টা করা হয়েছিল তাঁর উপর, তাও আবার নিজের বাড়িতেই! ‘বিগবস ১৩’ খ্যাত আরতি সিংহ সম্প্রতি ছোটবেলার সেই ভয়ঙ্কর স্মৃতি নিয়েই মুখ খুললেন বিগবসের ঘরেই।

ঠিক কী হয়েছিল আরতির সঙ্গে? আরতির কথায়, “তখন আমার ১৩ বছর বয়েস।লখনউতে থাকতাম আমি। এক দিন বাড়িতে কেউ ছিলেন না। ঠিক সেই সময়েই হঠাৎই দুপুরবেলা আমার বাড়িতে যে কাজ করত, ঘরের দরজা বন্ধ করে আমায় ধর্ষণের চেষ্টা করে। আমি চিৎকার করতে থাকি। কিন্তু বাড়িতে তো কেউ নেই। কোনওরকমে তাঁকে ধাক্কা দিয়ে ফেলে সেই জায়গা থেকে পালিয়ে এসেছিলাম। কোনওদিন কাউকে এই ঘটনার কথা বলতে পারিনি আমি। সে দিনের সেই ঘটনা আমায় ভিতর থেকে নাড়িয়ে দিয়েছিল পুরোপুরি। আমার প্যানিক অ্যাটাক হয়েছিল। প্রায় এক বছর ধরে এর প্রভাব ছিল আমার উপর। ”

আরতি যোগ করেন, “সবাই মনে করত কেউ হয়ত আমায় ছেড়ে চলে গিয়েছে, তাই আমি এ রকম ডিপ্রেশনে চলে গিয়েছি। কিন্তু সত্যিটা কোনদিনও কাউকে বলতেই পারিনি আমি। অনেকেই ভাবতে পারেন, এত দিন চুপ করে থাকার পর আজ হঠাৎ করে এত বছর আগে ঘটে যাওয়া একটি ঘটনা নিয়ে কেন মুখ খুললাম আমি? তাঁদের জানিয়ে রাখি, বিগবস অনেকে দেখেন। তাঁরা হয়ত এই ঘটনাটি থেকে সাবধান হতে পারবেন যে নিজের বাড়িতেও এ রকম ঘটনার সম্মুখীন হতে পারেন কোনও নারী।”

মা-ভাই সে সময় পাশে দাঁড়িয়েছিলেন। অবশেষে সেই ট্রমার থেকে বেরোতে পেরেছিলেন আরতি। আরতির ওই ঘটনা নাড়িয়ে দিয়েছে তাঁর বৌদি অভিনেত্রী কাশ্মিরা শা কেও। কাশ্মীরার কথায়, “আমি চিরকাল ভিক্টিমদের পাশে দাঁড়ানোর চেষ্টা করেছি, অথচ নিজেই জানতাম না, আমার বাড়িতেও এমন একজন মানুষ রয়েছেন। আরতি হাউজ থেকে বেরোলেই ওঁকে এই ব্যাপারে জিজ্ঞেস করব আমি”।

সম্প্রতি ‘ছপাক’-এর প্রচারের জন্য দীপিকা, বিক্রান্ত ছাড়াও যাঁকে কেন্দ্র করে ফিল্মের গল্প, সেই লক্ষ্মী আগরওয়াল এসেছিলেন বিগ বসের ঘরে। সেখানেই লক্ষ্মীর জীবনের নানা স্ট্রাগলের কথা শুনতে শুনতে নিজের জীবনের নানা অজানা তথ্য মেলে ধরেছিলেন প্রতিযোগীরা। অভিনেত্রী রেশমি দেশাইও জানিয়েছিলেন, এক বার বিষ খেয়ে আত্মহত্যা করতে গিয়েছিলেন তিনি।

বিপি/আর এল


Leave a Comments

avatar
  Subscribe  
Notify of