Menu

সর্বশেষ
সর্বশেষ


বিনোদন ডেস্ক: সাত পাকে বাঁধা পড়লেন রজনীকান্ত কন্যা সৌন্দর্যা। জমজমাট এই বিয়ের অনুষ্ঠানে দক্ষিণ ভারতের রাজনীতিবিদ থেকে দক্ষিণ ভারতীয় চলচ্চিত্রর তারকাদের অনেকেই উপস্থিতি ছিলেন। এটি স্যেন্দর্যার দ্বিতীয় বিয়ে। ২০১০ সালে অশ্বিন রামকুমারের সঙ্গে বিয়ে হয় সৌন্দর্যার। পরবর্তীতে বিচ্ছেদ হয় তাদের। তার প্রথম পক্ষের একটি ছেলে রয়েছে। যার না বেদ।সৌন্দর্যার দ্বিতীয় স্বামী অভিনেতা-ব্যবসায়ী বিশাগন বননগামুডি। বিশাগনেরও এটি দ্বিতীয় বিয়ে। প্রথমে তিনি বিয়ে করেন এক সাংবাদিক কণিকা কুমারনকে। তাদেরও বিচ্ছেদ হয়ে যায়। এর পরই গ্রাফিক ডিজাইনার ও ফিল্মমেকার সৌন্দর্যার সঙ্গে তার পরিচয় হয়।

সৌন্দর্যা তার নিজের এই দ্বিতীয় বিয়েতে ছেলে বেদকে সঙ্গে নিয়েই মেহেন্দি অনুষ্ঠান সারেন। বিয়েতে এসেছিলেন ডিএমকে নেতা স্ট্যালিন, উপস্থিত ছিলেন আলাগিরি, ভাইকো, তামিলনাড়ুর মুখ্যমন্ত্রী পালানিস্বামী। আরও উপস্থিত ছিলেন রজনীকান্তের জামাই ধনুষ, লক্ষ্মী মাঞ্চু, অদিতি রাও হায়দারি, মণিরত্নম ও মোহন বাবু। একই সঙ্গে উপস্থিত ছিলেন কমল হাসনও। রজনীকান্তের সঙ্গেও বিয়ের আচারের বেশ কিছু কাজে সাহায্য করেছেন তিনি।বিয়ের বেশ কিছু ছবি প্রকাশ পেয়েছে সোশ্যাল মিডিয়াতে।

যাতে দেখা যায় বাবার সঙ্গে সৌন্দর্যা।  বিয়েতে আবু জানি-সন্দীপ খোসলার ডিজাইনের পোশাক পরেছিলেন সৌন্দর্যা। অতিথিদের অভ্যর্থনায় ব্যস্ত ছিলেন মেয়ের বাবা রজনীকান্ত ও তার স্ত্রী।সৌন্দর্যার মেক আপ শিল্পী প্রকৃতি অনন্ত পোস্ট করেছিলেন সৌন্দর্যার একটি ছবি, তিনি পরেছিলেন কাঞ্চিপুরম সিল্ক শাড়ি। ভাইরাল হয় সেটি। সৌন্দর্যার চুল বাঁধার একটি ছবি পোস্ট করেছেন তিনি। তার বিনুনিতে ফুল দিয়ে যে ভাবে সাজানো হয়েছিল, তা একেবারেই সনাতনী দক্ষিণ ভারতীয় ঘরানায়। সৌন্দর্যার সঙ্গে বিশাগনের প্রি-ওয়েডিংয়ের ছবিও এসেছে প্রকাশ্যে।সৌন্দর্যা বলেন, ‘ছেলে, বাবা, আর এখন থেকে বিশাগন আমার জীবনের তিন জন দেবদূত।’সূত্র : আনন্দবাজার

বিপি/কেজে


Leave a Comments

avatar
  Subscribe  
Notify of

সর্বশেষ সংবাদ