Menu

সর্বশেষ
সর্বশেষ


বিএনপি-জামাতের দেওয়া সংবর্ধনা সভায় এক মঞ্চে পররাষ্ট্রমন্ত্রী ও বঙ্গবন্ধুকে নিয়ে বিদ্রুপকারী এম এ আজিজ (বাম থেকে পঞ্চম)

নিউ ইয়র্ক প্রতিনিধি: যুক্তরাষ্ট্রের নিউ ইয়র্কে বাংলাদেশের পররাষ্ট্রমন্ত্রী ড.একে আব্দুল মোমেন বিএনপি-জামাতের দেওয়া সংবর্ধনা সভায় যোগ দেওয়াকে কেন্দ্র করে ছি ছি রব উঠেছে। পররাষ্ট্রমন্ত্রী হিসেবে যুক্তরাষ্ট্রে প্রথম সফরের নিউ ইয়র্ক পৌছার পর তার সম্মানে স্থানীয় সময় গত রোববার সকালে লাগোর্ডিয়া ক্রাইন প্লাজা হোটের বলরুমে আমেরিকান বাংলাদেশি বিজনেস এলায়েন্স (এবিবিএ) আয়োজিত সংবর্ধনা সভায় যোগ দেন তিনি।আয়োজক সংগঠনের অধিকাংশ সদস্যই বিএনপি ও জামাতের কর্মি বলে অভিযোগ উঠেছে। ওই সময়ে ড.মোমেন বিএনপি ও জামাতের কর্মিদের নিয়ে এবিবিএ প্রতিষ্ঠায় অগ্রণী ভূমিকা পালন করেছেন।

পররাষ্ট্রমন্ত্রী ড.একে আব্দুল মোমেন দীর্ঘদিন নিউ ইয়র্কের বাসিন্দা হবার বদৌলতে তিনি আমেরিকান বাংলাদেশি বিজনেস এলায়েন্স (এবিবিএ)সকল সদস্যদের চেনেন ও জানেন।বিএনপি জামাতের দ্বারা গঠিত এ সংগঠনের কথা জেনেও তিনি তাদের দেওয়া সংবর্ধনা নিয়েছেন। এ ঘটনায় আওয়ামী ও স্বাধীনতার পক্ষের নেতাকর্মিদের মাঝে ছি ছি রব উঠেছে। শুধু তাই নয়, একটি দালাল চক্রের মাধ্যমে তিনি একটি ব্যক্তিগত ব্যবসা প্রতিষ্ঠান উদ্বোধন করে রেকর্ড করেছেন।
এছাড়াও ঢাকা কেন্দ্রিয় কার্যালয় থেকে বাতিল হওয়া ও ভূয়া যুক্তরাষ্ট্র বঙ্গবন্ধু ফাউন্ডেশনের দেওয়া সংবর্ধনা সভায়ও যোগ দেন তিনি। এ নিয়ে যোগাযোগ মাধ্যমে সমালোচনার ঝড় উঠেছে।
সবচেয়ে বেশি আলোচনায় এসেছে ‘বঙ্গবন্ধুর মৃত্যুবার্ষিকী’ নিয়ে বিদ্রুপকারী ও আওয়ামীলীগকে ধৃণাকারী বাংলাদেশ সোসাইটির ট্রাষ্টি বোর্ডের চেয়ারম্যান ও সাবেক সভাপতি এম আজিজ পররাষ্ট্রমন্ত্রীর পাশেই একই মঞ্চে বসেছিলে। এম এ আজিজ গত বছর অন্যের স্বাস্থ্যবীমা চুরি স্বাস্থ্যসেবা ও ওষুধ কেনার অপরাধে গ্রেপ্তার হয়েছিলেন। এ ধরনের ব্যক্তি পররাষ্ট্রমন্ত্রীর পাশে বসার সুযোগ কীভাবে পেলো তা নিয়ে এখন টক অব দ্য টাউনে পরিনত হয়েছে।
এদিকে, এবিবিএ’র সংবর্ধনা কমিটির আহ্বায়ক, বিশিষ্ট শিল্পপতি জহিরুল ইসলামের সভাপতিত্বে আয়োজিত অনুষ্ঠানে জাতিসংঘে নিযুক্ত বাংলাদেশের স্থায়ী প্রতিনিধি মাসুদ বিন মোমেন ও নিউইয়র্কে বাংলাদেশের কনসাল জেনারেল মিজ সাদিয়া ফয়জুন্নেসা সহ অন্যান্যের মধ্যে শুভেচ্ছা বক্তব্য রাখেন সাবেক এমপি এম এম শাহীন, বাংলাদেশ সোসাইটির ট্রাষ্টি বোর্ডের চেয়ারম্যান এম আজিজ, সোসাইটির সভাপতি কামাল আহমেদ, এবিবিএ’র উপদেষ্টা এন মজুমদার, রাহাত মুক্তাদীর, এবিবিএ’র জেনারেল সেক্রেটারী ইয়াকুব এ খান সিপিএ, প্রতিষ্ঠাতা জেনারেল সেক্রেটারী বিলাল আহমেদ চৌধুরী, এবিবিএ’র সংবর্ধনা কমিটির সদস্য সচিব মইনুল ইসলাম এবং চীফ কো-অর্ডিনেটর শাহ নেওয়াজ। অনুষ্ঠান মঞ্চে উপবিষ্ট ছিলেন অধ্যাপক ডা. জিয়াউদ্দিন আহমেদ।
অনুষ্ঠানের শুরুতে পবিত্র কোরআন থেকে তেলাওয়াত করেন ইমাম কাজী কাইয়্যুম এবং বাইবেল থেকে পাঠ করেন টমাস দুলু রায়। এরপর বাংলাদেশ ও যুক্তরাষ্ট্রের জাতীয় সঙ্গীত পরিবেশিত হয়। পরবর্তীতে এবিবিএ’র পক্ষ থেকে কর্মকর্তারা এক গুচ্ছ ফুল দিয়ে পররাষ্ট্রমন্ত্রী ড. মোমেনকে শুভেচ্ছা জানানোর পর মানপত্র পাঠ করেন সাপ্তাহিক বাঙালী সম্পাদক কৌশিক আহমেদ। এরপর স্বাগত বক্তব্য রাখেন এবং সংগঠনের কর্মকর্তাদের পরিচয় করিয়ে দেন এবিবিএ’র সভাপতি ফখরুল ইসলাম দেলোয়ার। সমগ্র অনুষ্ঠান যৌথভাবে উপস্থাপনায় ছিলেন এবিবিএ’র সংবর্ধনা কমিটির জয়েন্ট মেম্বার সেক্রেটারী এএফ মিসবাহউজ্জামান।
এছাড়াও আব্দুল ওয়াহিদ টুপন ও এডভোকেট আখতার আহমেদ মন্ত্রী ড. মোমেনকে ফুল দিয়ে শুভেচ্ছা জানান।
উল্লেখ্য, ড. মোমেন দীর্ঘদিন যুক্তরাষ্ট্র প্রবাসী ছিলেন এবং জাতিসংঘে বাংলাদেশের স্থায়ী প্রতিনিধি হিসেবে দায়িত্ব পালনের পর প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার যাকে বাংলাদেশে ফিরে যান এবং দেশের একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে সিলেট-১ আসন থেকে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করে প্রথমবারের মতো এমপি নির্বাচিত হন।পরবর্তীতে তিনি শেখ হাসিনা সরকারের নতুন মন্ত্রীসভায় পররাষ্ট্রমন্ত্রী হিসেবে যোগ দেন।

বিপি/সিএস


Leave a Comments

avatar
  Subscribe  
Notify of