Menu

সর্বশেষ
সর্বশেষ


নিজস্ব প্রতিবেদক: যুক্তরাষ্ট্রের জর্জিয়া অঙ্গরাজ্যে নির্বাচিত বিএনপির কমিটি নিয়ে ষড়যন্ত্রকারীদের বিরুদ্ধে শিগগির ব্যবস্থা নেওয়া হবে।প্রথমবারের মতো সম্মেলনের মাধ্যমে সংগঠনটির সদস্যদের প্রত্যক্ষ ভোটে নির্বাচিত এ কমিটিকে নিয়ে একটি স্বার্থান্বেষী মহল বিভিন্ন সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে নানা ধরনের কুৎসা ছড়াচ্ছেন। যারা নতুন কমিটি ও সকল সদস্যদেরকে হেয় প্রতিপন্ন করার চেষ্টা করছেন শিগগির তাদের বিরুদ্ধে দলীয় ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে বলে উল্লেখ করেছেন নব নির্বাচিত সভাপতি নাহিদুল খান সাহেল।
যুক্তরাষ্ট্রের জর্জিয়া অঙ্গরাজ্য বাংলাদেশ জাতীয়তাবাদী দল (বিএনপি)’র চূড়ান্ত কমিটি গঠনের লক্ষ্যে দলের সিনিয়র ভাইস প্রেসিডেন্ট তারেক রহমানের নির্দেশে সহ-আন্তর্জাতিক বিষয়ক সম্পাদক আনোয়ার হোসেন খোকনের উপস্থিতিতে গতবছর গত ৮ ডিসেম্ব প্রথমবারের মতো সম্মেলন অনুষ্ঠিত হয়। সংগঠনটির সদস্যদের প্রত্যক্ষ ভোটে নাহিদুল খান সাহেল ও মামুন শরীফকে যথাক্রমে সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদক নির্বাচিত করে ১৩ সদস্যের একটি কমিটি গঠন করা হয়। বিএনপির ভারপ্রাপ্ত সভাপতি তারেক রহমানের অনুমোদন লাভের পর গত ৩০ ডিসেম্বর বিএনপির কেন্দ্রিয় কমিটির মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর কর্তৃক স্বাক্ষরিত এক পত্রে জর্জিয়া অঙ্গরাজ্য বিএনপি’র নির্বাচিত ১৩ সদস্যের এ কমিটিকে চূড়ান্ত অনুমোদন দেন। অনুমোদিত এ কমিটিতে মোট ৬৫ জন সদস্য রয়েছেন।

কেন্দ্রিয় কমিটির মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর কর্তৃক অনুমোদিত জর্জিয়া বিএনপিকে নিয়ে একটি স্বার্থান্বেষী মহল বিভিন্ন সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে নানা ধরনের কুৎসা ছড়াচ্ছেন। যারা নতুন কমিটিকে অহেতুক বিতর্কিত ও হেয় প্রতিপন্ন করার চেষ্টা করছেন শিগগির তাদের বিরুদ্ধে দলীয় ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে। তাদের এই নোংরামির ঘটনা ইতোমধ্যে কেন্দ্রিয় কমিটকে অবহিত করা হয়েছে, কেন্দ্র থেকে নির্দেশ আসলেই চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত নেওয়া হবে।
নাহিদুল খান সাহেল বলেন, দেশের বর্তমান পরিস্থিতে প্রবাসে বিএনপির সকল নেতাকর্মিদের ঐক্যবদ্ধ হয়ে কাজ করার নির্দেশ রয়েছে। কিন্তু তা না করে কিছু নেতাকর্মি নেতৃত্বের জন্য মরিয়া হয়ে নিজেদের ব্যক্তিত্বকে বিসর্জন দিয়ে দলের ক্ষতি সাধনে লিপ্ত রয়েছেন। তাই অতীতের সকল ভেদাভেদ ভুলে জর্জিয়া বিএনপির সকল নেতাকর্মিদের ঐক্যবদ্ধ হয়ে কাজ করার আহবান জানান তিনি।

সাহেল বলেন, বারবার অবরুদ্ধ গণতন্ত্রকে যিনি মুক্ত করেছেন সেই অবিসংবাদিত দেশনেত্রী খালেদা জিয়াকে মিথ্যা ও বানোয়াট মামলায় সাজা দিয়ে বন্দি করে রাখা হয়েছে। ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান তারেক রহমানকেও ষড়যন্ত্রমূলক মামলায় সাজা দেওয়া হয়েছে। এসব প্রতিহিংসামূলক জুলুমের বিরুদ্ধে যুক্তরাষ্ট্রে বিএনপির নেতাকর্মিদের ঐক্যবদ্ধ হয়ে রুখে দাঁড়াতে প্রবাসের সকল নেতাকর্মিদের দৃষ্টি আকর্ষন করেন তিনি। দেশনেত্রী খালেদা জিয়াকে মিথ্যা ও বানোয়াট মামলায় সাজা দিয়ে বন্দি করে রাখা হয়েছে। ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান তারেক রহমানকেও ষড়যন্ত্রমূলক মামলায় সাজা দেওয়া হয়েছে।তাই এসব অন্যায়ের প্রতিবাদে করতে প্রবাসে বিএনপির নেতাকর্মিদের ঐক্যবদ্ধ হবার একনই সময়।
তিনি বলেন, এখন আর ঘরে বসে থাকার সময় নেই।দেশে একদলীয় শাসনের এই দুঃসময়ে প্রবাসে বিএনপিকে শক্তিশালী ও গতিশীল করতে হবে। কারাবন্দি খালেদা জিয়ার দ্রুত মুক্তির জন্য আমাদেরকে যুক্তরাষ্ট্রের মূলধারার রাজনীতিবিদদেরকে তাগাদা দিতে হবে।


Leave a Comments

avatar
  Subscribe  
Notify of

এই বিভাগের আরও সংবাদ