Menu

সর্বশেষ
সর্বশেষ


নিজস্ব প্রতিবেদক, বোষ্টন: যুক্তরাষ্ট্রের ম্যাসাচুসেটেস অঙ্গরাজ্যের বোষ্টনে প্রবাসী বাংলাদেশিদের সংগঠন বাংলাদেশ অ্যাসোসিয়েশন অব নিউ ইংল্যান্ড (বেইন)-এর দ্বিবার্ষিক নির্বাচনে চার ঘন্টার অসমাপ্ত ভোটের পুনঃনির্বাচন দাবি করেছেন বোষ্টন প্রবাসী বাংলাদেশিরা। স্থানীয় সময় শনিবার ভোট চলাকালীন সময়ে দু’প্যানেলের মধ্যে হট্টগোল দেখা দিলে পুলিশ এসে ভোটগ্রহন বন্ধ করে দেয়। অসমাপ্ত ভোট গ্রহনের সুরাহা না করে নির্বাচন কমিশন তাদের মনোপলি সিদ্ধান্তে ভোট গণনার সিদ্ধান্ত সংগঠনের সংবিধান বহির্ভূত বলে উল্লেখ করেছেন বেইনের সাবেক জ্যেষ্ঠ কর্মকর্তারা।
জানা যায়, অপ্রীতিকর ঘটনার পর পুলিশের হস্তক্ষেপে ভোট বন্ধ করা হয়। চার ঘন্টা ভোট অসমাপ্ত রেখে গণনার সিদ্ধান্তে যাবার আগে খোকা–নবী-সামি পরিষদ ভোট গণনার মৌখিক সিদ্ধান্তে রাজি হলেও অপর প্যানেল আসিফ-বিপু-রনি পরিষদ রাজি ছিলেন না। কিন্তু কিসের ভিত্তিতে নির্বাচন কমিশন ভোট গণনা করেছেন তা নিয়ে নানা প্রশ্ন দেখা দিয়েছে। একই সাথে সচেতন প্রবাসীরা চার ঘন্টার অসমাপ্ত ভোটের পুনঃনির্বাচন দাবি করেছেন তারা।
নাম প্রকাশে অনেচ্ছুক একাধিক ভোটার দাবি করেছেন নির্বাচন কমিশন নিরপেক্ষ ছিলেন না। শুরু থেকেই তাদের কর্মকান্ড ছিল প্রশ্নবিদ্ধ। না হলে ভোটকেন্দ্রে হট্টগোলের বিষয়টি পুলিশ আসার আগেই নিজেরাই সমাধান করতে পারতেন। তা না করে তারা দাঁড়িয়ে মজা নিয়েছেন। এখনো ৭ শত ভোট প্রদান বাকি রয়েছে আর বর্তমান দু’জন সভাপতি প্রার্থীর ভোটের ব্যবধান রয়েছে মাত্র ৮০টি। চার ঘন্টা পুনঃভোট না হলে তাদের এ সিদ্ধান্তকে কোন ভাবেই মেনে নেবেন বোষ্টনের কমিউনিটি নেতারা। প্রয়োজনে নির্বাচন কমিশনকে আদালতে নিয়ে যাবেন তারা। কারন সংগঠনের সংবিধান লংঘন করে নির্বাচন কমিশন তাদের কোন খামখেয়ালি সিদ্ধান্ত নিতে পারেন না। এদিকে ভোট দিতে না পেরে ভোটকেন্দ্রে উপস্থিত ভোটদানে ব্যর্থ ভোটাররা ক্ষুব্ধ প্রতিক্রিয়া ব্যক্ত করেছেন। তাদের সকলের দাবি অসমাপ্ত চার ঘন্টার ভোট যে কোন দিন পুনঃনির্বাচন করা হোক।

ভোটকেন্দ্রে উপস্থিত প্রত্যক্ষদর্শীরা জানিয়েছেন, শনিবার ভোট চলাকালীন সময়ে দু’প্যানেলের মধ্যে হট্টগোল দেখা দিলে পুলিশ দফায় দফায় পুলিশ ডাকা হয়। চার ঘন্টা ভোটগ্রহন শেষে দুপুর একটার দিকে পুনরায় পুলিশ এসে ভোট বন্ধ করে দেন। ঘটনা বেগতিক দেখে নির্বাচন কমিশিন পুনঃভোটের সিদ্ধান্তে না গিয়ে শনিবার দুপুর পর্যন্ত গৃহিত এবং আগের দিনের আগাম ভোট গণনার সিদ্ধান্ত নেন। কমিশনের এ সিদ্ধান্তে খোকা–নবী-সামি পরিষদ ভোট গণনার মৌখিক সিদ্ধান্তে রাজি হলেও অপর প্যানেল আসিফ-বিপু-রনি পরিষদ রাজি ছিলেন না। উভয় প্যানেলের কাছ থেকে কোন লিখিত কোন অঙ্গিকার নামাতেও স্বাক্ষর নেননি নির্বাচন কমিশন। অদক্ষ এই নির্বাচন কমিশনের হটকারী সিদ্ধান্তকে মেনে নেবেন না বোষ্টনবাসী।
সকাল ৯ টা থেকে দুপুর একটা পর্যন্ত চার ঘন্টায় প্রায় দেড় হাজার ভোটারের মধ্যে ৮২১ ভোট গ্রহন করা হয়।গণনাকৃত ফলাফলে সভাপতি পদে এগিয়ে আছেন আসিফ বাবু। তিনি পেয়েছেন ৪৪৫ ভোট এবং তার প্রতিদ্বন্দি প্রার্থী মাহাবুব-ই খোদা (খোকা) পেয়েছেন ৩৬৫ ভোট। সহ-সভাপতি পদে ইমরান বাকী বিপু পেয়েছেন ৪২৭ ভোট এবং প্রতিদ্বন্দ্বি প্রার্থী আহামাদ নবী পেয়েছেন ৩৮৫ ভোট। সাধারন সম্পাদক পদে ওমর এফ সামি পেয়েছেন ৪২৩ ভোট এবং তার প্রতিদ্বন্দ্বি প্রার্থী শহিদুল ইসলাম রনি পেয়েছেন ৩৮৭ ভোট। তারা বলছেন অসমাপ্ত ভোট গ্রহন শেষ না করলে বোষ্টনে বাংলাদেশিদের বিভেদ আরো বাড়বে। বিষয়টি আদালত পর্যন্ত গড়াতে পারে বলে ধারনা করা হচ্ছে।
এদিকে শনিবার রাত সোয়া ১১ টায় নির্বাচন কমিশন তাদের প্রহশনের নির্বাচনী ফলাফল প্রকাশ করেছন। সভাপতি পদে আসিফ বাবু, সহ-সভাপতি পদে ইমরান বাকী বিপু এবং সাধারন সম্পাদক পদে ওমর এফ সামিকে নির্বাচিত ঘোষনা করেছেন।এ ছাড়াও তানভীর মুরাদ-যুগ্ম সাধারন সম্পাদক, শহিদুল আলম-কোষাধ্যক্ষ, রেহানা পারভীন সাংস্কৃতিক সম্পাদক, এসএম সাজ্জাদ হোসেন ক্রীড়া সম্পাদক, খন্দকার আরিফুল হক জনকল্যান সম্পাদক,সবুজ বড়ুয়া শিক্ষা বিষয়ক সম্পাদক, সাজ্জাদ সানিদ গণসংযোগ সম্পাদক এবং গোলাম মুর্তোজা, জাহিদুল ইসলাম মানিক, জাবেদ আফসার, মহুয়া আকতার বিউটি ও ফরহাদ উদ্দিন নির্বাহী সদস্য পদে নির্বাচিত হয়েছেন বলে নির্বাচন কমিশনের ইমেইল বার্তায় জানা গেছে।
বেইনের এক সূত্র জানিয়েছেন, ভোট চলাকালীন সময়ে সভাপতি প্রার্থী আসিফ বাবু অপর প্যনেলের এক প্রার্থীকে ঘুষি মারলে সে কিছুটা আহত হন। তিনি বিষয়টি বেইন কর্তৃপক্ষসহ স্থানীয় পুলিশে অভিযোগ করেছেন। পুলিশ তাকে আদালতে যাবার পরামর্শ দিয়েছেন বলে জানা গেছে।
এদিকে, কেন্দ্রের বাইরে পাওয়া যাচ্ছে প্রদত্ত ভোটপত্র। শুক্রবার সন্ধ্যা ৬টা থেকে রাত ১০টা পর্যন্ত আগাম ভোট চলাকালীন সময়ে বেশ কিছু প্রদত্ত ভোটপত্র কেন্দ্রের বাইরে প্রার্থী ও কর্মিদের হাতে দেখা গেছে। যা দেখে অনেকেই হতবাক হয়েছেন। মেডফোর্ডের মিষ্টিকভ্যালী এলাকার অ্যান্ড্রু মিডল স্কুলে আজ শনিবার সকাল ৯ টা শুরু হয়েছে ভোটগ্রহন, চলবে বিকেল ৫ টা পর্যন্ত।
বেইন-এ নির্বাচনে নির্বাচন কমিশনার (ইসি) অবাধ সুষ্ঠ ও নিরপেক্ষ ভোট প্রহনের কথা উল্লেখ করলেও প্রদত্ত ভোটপত্র কীভাবে বাইরে এলো তা নিয়ে নানা কৌতুহল দেখা দিয়েছে ভোটার ও প্রার্থীদের মাঝে। ভোটদানের পর এসব ভোটপত্র নির্দিষ্ট বাক্সে ফেলে তা সংরক্ষণের দায়িত্ব করবেন নির্বাচন কমিশনার কিংবা তাদের নিয়োজিত প্রতিনিধিদের। কিন্তু নির্বাচন কমিশনাররা এ বিষয়ে কোন মন্তব্য করেননি। এ বিষয়ে তারা কি জবাব দেবেন তার অপেক্ষায় রয়েছে বোষ্টনবাসী।
এবারে প্রধান নির্বাচন কমিশনারের দায়িত্বে রয়েছেন মুসা শরীফ এবং সহকারি নির্বাচন কমিশনার হিসেবে তাকে সহযোগিতা করছেন উজ্জ্বল বড়ুয়া ও খসরু আলম।

বিপি।সিএস


2
Leave a Comments

avatar
1 Comment threads
1 Thread replies
0 Followers
 
Most reacted comment
Hottest comment thread
2 Comment authors
AnonymousAnonymous Recent comment authors
  Subscribe  
newest oldest most voted
Notify of
Anonymous
Guest
Anonymous

Lol. What a joke! All of these bengali organizations should be banned

Anonymous
Guest
Anonymous

Haha uncivilized corrupted people including Bangladeshi Government !!!

এই বিভাগের আরও সংবাদ