Menu

সর্বশেষ
সর্বশেষ


বিপ্লব আহমেদ, ফরিদপুর থেকে : ফরিদপুরের বোয়ালমারী উপজেলায় পুলিশের সঙ্গে ‘বন্দুকযুদ্ধে’ এক ব্যক্তি নিহত হয়েছেন।

গতকাল মঙ্গলবার দিবাগত রাত আড়াইটার দিকে উপজেলার শেখর ইউনিয়নের বারাংকুলা গ্রামের প্রিয়নাথ পালের মেহগুনি বাগানে এ বন্দুকযুদ্ধের ঘটনা ঘটে। নিহত ব্যক্তির নাম এনায়েত মোল্যা ওরফে এনায়েত শেখ (৪০)। তিনি বোয়ালমারীর চতুল ইউনিয়নের রামচন্দ্রপুর গ্রামের বাসিন্দা।

পুলিশের ভাষ্য, তাঁর বিরুদ্ধে বিভিন্ন থানায় ডাকাতির অভিযোগসহ বিভিন্ন অভিযোগে ১৫টি মামলা রয়েছে। বোয়ালমারী থানার অফিসার ইনচার্জ আমিনুর রহমান জানায়, গতকাল রাত পৌনে নয়টার দিকে ঝিনাইদা জেলার শৈলকুপা উপজেলার হাটফাজিলপুর বাজার থেকে এনায়েত মোল্যাকে আটক করা হয়। বোয়ালমারী থানায় এনে তাঁকে জিজ্ঞাসাবাদে তিনি তাঁর কাছে অস্ত্র আছে বলে তথ্য দেন। পরে এনায়েতকে নিয়ে পুলিশ অস্ত্র উদ্ধার করতে বারাংকুলা গ্রামের ওই মেহগনি বাগানে যায়। ওই সময় এনায়েতের সহযোগীরা পুলিশকে লক্ষ্য করে গুলি ছোড়ে। পুলিশও আত্মরক্ষার্থে পাল্টা গুলি ছোড়ে।

এতে ‘বন্দুকযুদ্ধ’ শুরু হয়। একপর্যায়ে এনায়েতের সহযোগীরা পালিয়ে যান। পরে এনায়েতকে গুলিবিদ্ধ অবস্থায় পড়ে থাকতে দেখা যায়। তাঁকে উদ্ধার করে বোয়ালমারী উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে গেলে কর্তব্যরত চিকিৎসক মৃত ঘোষণা করেন। “বন্দুকযুদ্ধে” বোয়ালমারী থানার ওসিসহ ছয় পুলিশ সদস্য আহত হয়েছেন।

এসময় সেখান থেকে একটি ওয়ান শুটারগান, চার রাউন্ড গুলি, একটি চাপাতি ও একটি চাইনিজ কুড়াল উদ্ধার করা হয় বলে তিনি জানান। হাসপতালের প.প কর্মকর্তা ডা. তাপস বিশ্বাস জানায়, এনায়েতকে হাসপাতালে আনার আগে মারা যায়। এদিকে পুলিশ লাশ ময়না তদন্তের জন্য ফরিদপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের মর্গে প্রেরণ করেছে।

বিপি/আর এল


Leave a Comments

avatar
  Subscribe  
Notify of

সর্বশেষ সংবাদ