Menu

সর্বশেষ
সর্বশেষ


বাংলাপ্রেস ডেস্ক: আতাফলের রয়েছে অনেক স্বাস্থ্যগুণ। এই ফলটি শরীফা এবং নোনা নামেও পরিচিত। হৃৎপিন্ড আকৃতির আতাফলের ভিতরে বীজকে ঘিরে থাকা নরম ও রসালো অংশ খাওয়া যায়। এতে রয়েছে প্রচুর পরিমাণে আমিষ ও শর্করা জাতীয় খাদ্য উপাদান। এছাড়া ভিটামিন সি, ভিটামিন এ, পটাশিয়াম, ম্যাগনেশিয়ামও আছে আতাফলে।

বছরের নভেম্বর-ডিসেম্বর মাসে বাজারে আসে আতা। এই ফলটি খেতে পারলে হৃদরোগসহ শরীরের আরও কয়েকটি ক্ষেত্রে উপকার পাওয়া যায়। এবার আতাফলের খাদ্যগুণ সম্পর্কে জানা যাক…

হৃদরোগীদের জন্য উপকারী
হার্টে যাদের সমস্যা রয়েছে তারা আতাফল খেলে উপকার পাবেন। কারণ এতে রয়েছে পটাশিয়াম, ম্যাঙ্গানিজ ও ভিটামিন সি। যা হার্টের জন্য খুবই উপকারী। তাই হার্টকে সুস্থ রাখতে আতাফল অবশ্যই খাবেন।

হজমশক্তি বৃদ্ধি করে
অনেকে মনে করেন, আতাফল খেলে ওজন বাড়ে। এটি কিন্তু একদমই ভুল ধারণা। আতাফল গ্যাস, অম্বল, বদহজম থেকে দূরে রাখে। এতে রয়েছে প্রচুর পরিমাণে ভিটামিন বি কমপ্লেক্স ও ভিটামিন বি সিক্স। যা হজমশক্তি বৃদ্ধিতে সাহায্য করে।

ক্লান্তি দূর করে আতা
ফার্টিলিটি বৃদ্ধিতেও কাজে লাগে আতাফল। প্রচুর আয়রন থাকে এই ফলে। যা ক্লান্তি দূর করতে দারুণভাবে কাজ করে। চামড়া, দৃষ্টিশক্তি, মস্তিষ্কের উন্নতি ও ক্যান্সার প্রতিরোধ করে আতাফল।

ডায়াবেটিস রোগীরা আতাফল খাবেন না
আতাফলের গ্লাইসেমিক ইনডেক্স ৫৪। এই কারণে ডায়াবেটিস রোগীদের শরীরে আতা বিরূপ প্রভাব ফেলতে পারে। তাই কোনভাবেই ডায়াবিটিস রোগীদের আতাফল খাওয়া চলবে না।

বিপি/কেজে


Leave a Comments

avatar
  Subscribe  
Notify of