Menu

সর্বশেষ
সর্বশেষ


ঝিনাইদহ থেকে সংবাদদাতা: তিন সন্তান রেখে স্বামী অন্য লোকের স্ত্রী নিয়ে উধাও রয়েছে ৬ মাস। তিন সন্তান নিয়ে গৃহবধু রিনা খাতুন শ্বশুর শ্বাশুড়ির নির্যাতনে অতিষ্ঠ। শেষ পর্যন্ত নির্যাতনে তিনি বাড়ি ছাড়া হয়েছেন। নিরুপায় হয়ে মহেশপুর থানায় লিখিত অভিযোগ দিয়েছেন। ঘটনাটি মহেশপুর উপজেলার সেজয়া গ্রামের। গৃহবধূ রিনা খাতুন ন্যায় বিচারের আশায় দ্বার দ্বারে ঘুরছে। অভিযোগ সূত্রে জানা গেছে, মহেশপুর উপজেলার সেজিয়া গ্রামের ওমর আলীর ছেলে আজগর আলীর সাথে প্রেমের সম্পর্ক ধরে ১৫ বছর আগে বিয়ে হয়।

ঢাকায় গার্মেন্টেসে চাকুরী করার সুবাদে গাজীপুর জেলার জয়দেবপুর থানার রথখোলা গ্রামের আব্দুর রাজ্জাকের মেয়ে হচ্ছে রিনা খাতুন। বিয়ের সময় দুই লাখ টাকা দেনমোহর ধার্য্য করা হয়। রিনা খাতুন জানান, ৬ মাস তার স্বামী তাদের ফেলে রেখে চলে গেছে। তাদের কোন ভরন-পোষন এমন কি খোজ-খবরও নিচ্ছেন না। পরকীয়ার জের ধরে স্বামী আজগর আলী অন্য এক মহিলাকে নিয়ে উধাও হয়ে গেছে। ফলে ৩টি সন্তান নিয়ে রিনা দুর্বিসহ জীবন কাটাচ্ছেন।

এদিকে স্বামী বাড়িতে না থাকায় গত ১২ই নভেম্বর শ্বশুর-শাশুড়ি অমানুষিক নির্যাতন করে ৩ সন্তানসহ তাকে বাড়ি থেকে বের করে দিয়েছেন। এ ঘটনায় নির্যাতিত গৃহবধূ বাদী হয়ে মহেশপুর থানায় একটি লিখিত অভিযোগ দিয়েছেন। মহেশপুর থানার এস.আই সজল মিয়া জানায়, এ বিষয়ে একটি অভিযোগ পাওয়া গেছে। আমরা তদন্ত করে আইনানুগ ব্যবস্থা নেব।

বিপি/কেজে


Leave a Comments

avatar
  Subscribe  
Notify of